সর্বশেষ সংবাদ

শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনন্ত জলিলের মানহানির মামলা

 

হবিগঞ্জের একটি মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক ও স্থানীয় লেখক উজ্জ্বলের বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করেছেন মনসুন ফিল্মসের চেয়ারম্যান অনন্ত জলিল। অনন্তর প্রোডাকশন হাউস 'দ্য স্পাই- অগ্রযাত্রার মহানায়ক' নামে একটি নতুন মুভি নির্মাণ করছেন। উজ্জ্বল নামে ওই লেখক এই অভিনেতাকে দেওয়া এক লিগ্যাল নোটিশ দাবি করেছেন যে মুভিটির স্ক্রিপ্ট তার নিজের লেখা। অনন্ত জলিল তা নকল করে অনুমতি ছাড়াই নিজের মুভিটিতে ব্যবহার করছেন। আর এ কারণেই মানহানির মামলাটি করেন অনন্ত।

 


এ বিষয়ে অনন্ত বলেন,' সম্পূর্ণ অপরিচিত একজন ভুয়া প্রতারকের দেয়া লিগ্যাল নোটিশে আমার সামাজিক মান-সম্মান নষ্ট হওয়ায় আমি তার বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার মানহানির মামলাটি করেছি।'

আজ মঙ্গলবার অনন্ত জলিলের পক্ষে মনসুন ফিল্মসের কর্মকর্তা মো. শাহাবুর আলম বাদী হয়ে বাংলাদেশ দণ্ডবিধির ৫০০ ধারা অনুযায়ী মামলাটি করেন। মঙ্গলবার কোর্টের বিজ্ঞ আইনজীবী অ্যাডভোকেট জসিমউদ্দিন সিএমএম আদালতে ১০ কোটি টাকার এ মানহানির মামলা করেন। এর আগে অভিযোগকারী লেখক উজ্জ্বলের পাঠানো লিগ্যাল নোটিশের জবাব দেন অনন্ত জলিলের পক্ষে তার আইনজীবী। জবাবে লেখক উজ্জ্বলের দাবিকে সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে চিহ্নিত করে নোটিশ প্রদানকারী লেখককে নোটিশের জবাব পাওয়ার ৭ দিনের মধ্যে তার দাবি প্রত্যাহার করে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করতে বলা হয়।



উল্লেখ্য, 'দ্য স্পাই-অগ্রযাত্রার মহানায়ক' মুভির লেখক দাবি করে হবিগঞ্জের মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক উজ্জ্বল অনন্ত জলিলকে একটি লিগ্যাল নোটিশ পাঠালে এই অভিনেতা বিস্ময় প্রকাশ করে জানান, তার মূল ভাবনা নিয়ে 'দ্য স্পাই- অগ্রযাত্রার মহানায়ক' মুভির কাহিনী চিত্রনাট্য ও সংলাপ রচনা করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত কাহিনীকার ছটকু আহমেদ। তিনি আরো জানান, এখন পর্যন্ত এ কাহিনীর লেখা সম্পন্ন হয়নি এবং এই গল্প নিয়ে অনন্ত জলিল কারো সঙ্গে কোনো আলাপ-আলোচনাও করেননি। সেহেতু গল্পের লেখক দাবিকারী উজ্জ্বল একজন প্রতারক এবং তার কোনো লেখা আজ পর্যন্ত প্রকাশ হয়নি।

তবে একজন স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকা পরিমাণের মানহানির মামলা করা কতটা যৌক্তিক তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনন্ত জলিলের অনেক ভক্তই।

Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.