সর্বশেষ সংবাদ

বাসায় কোন পাত্তা নেই তারকা প্রভার

বাসায় কোন পাত্তা নেই তারকা প্রভার

মডেলিং দিয়ে মিডিয়ায় যাত্রা শুরু হয় প্রভার। এরপর নাটক-টেলিফিল্মে অভিনয় করে হয়ে ওঠেন জনপ্রিয়। প্রিয়.কমের মুখোমুখি হয়ে প্রভা জানালেন তার সাম্প্রতিক খবরাখবর। বাদ পড়েনি ব্যক্তিগত প্রসঙ্গও। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন সুদীপ্ত সাইদ খান।

উত্তরার একটি শুটিং হাউসে চলছিল পেন্ডুলাভ নামের একটি নাটকের শুটিং। সেখানেই দেখা হয় প্রভার সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নেওয়ার আগ্রহ পোষণ করতেই প্রভা আপত্তি জানালেন। অন্তত কোন অনলাইন পত্রিকায় তিনি সাক্ষাৎকার দিবেন না এমনটাই মনোভাব। তবে প্রিয়.কমের আবদার ফেলতে পারলেন না তিনি। হেসেই জানালেন, ‘অনলাইন পত্রিকাগুলো আমাকে নিয়ে আজেবাজে নিউজ করে। তারা আমার সঙ্গে কথা না বলেই নিউজ ছেপে দেয়। এজন্য কোন অনলাইন পত্রিকাকে সাক্ষাৎকার দিতে চাই না। কথা না বলেই যদি নিউজ ছাপতে পারেন তারা তাহলে তাদের সঙ্গে কথা বলে কি লাভ!’
লাভ-লোকসানের তর্ক রেখে আমরা ঢুকে যাই কাজের ভেতরে। প্রভা বলতে থাকেন তার সাম্প্রতিক কাজের খবর, ‘এই তো ঈদের নাটক-টেলিফিল্মের কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছি। মাঝে মধ্যে ধারাবাহিকগুলোর জন্য শিডিউল দিচ্ছি। আর এত কাজ করছি যে কোনটা ছেড়ে কোনটার কথা বলবো।’

বাসায় কোন পাত্তা নেই তারকা প্রভার
বেশ কিছুদিন ধরেই তো শোনা যাচ্ছে নতুন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন আপনি? সেটার খবর কি? ‘না কথাবার্তা হচ্ছে অনেকের সঙ্গেই। কিন্তু এখনো ভাল কোন গল্প পাই নি। আমি আসলে অপেক্ষা করছি সুন্দর একটি গল্পের জন্য। এর আগে সালাউদ্দীন লাভলুর ওয়ারিশ করার কথা ছিল কিন্তু হলো না।’
গিয়াস উদ্দীন সেলিমের মনপুরা ছবিও তো করার কথা ছিল আপনার? কিন্তু করেন নি কেন? একটা দীর্ঘশ্বাস নিয়েই কথা বলা শুরু করলেন প্রভা, ‘তখন আমি অতটা সিরিয়াস ছিলাম না আর ফ্যামিলিও চায়নি। তারা কেন চায় নি তা বলতে পারবো না। সেটা ছিল আমার সবচেয়ে ভুল সিদ্ধান্ত। এটাকে আমার ব্যাড লাকই বলবো। তবে অপেক্ষায় আছি এবার দেখি লাক ফেভার করে কি না’।
কথা বলতে বলতেই প্রভার ফোন বেজে ওঠে। মায়ের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা বলা শেষ করে আবার কথা শুরু করতেই জানতে চাইলাম মা মেয়ের সম্পর্ক কেমন? প্রভা হেসে বললেন, ‘মা-মেয়ের সম্পর্ক বান্ধবীর মতো। মা’র সঙ্গে আমার ১৭ বছরের ডিফরেন্স। মা-ও বড় হয়েছে আমিও বড় হয়েছি। দুজনের মাঝে বেশ মজার কিছু মিল ছিল। মাঝে মাঝে মার সঙ্গে ঝগড়া হতো। তখন আমরা কথা বলতাম না। দরজার নিচ দিয়ে চিঠি চালাচালি করতাম। ভাবতাম এত কথা বলে লাভ কি তারচেয়ে বরং লিখি। আর এ কান্ডগুলো ঘটতো স্কুল,কলেজ এ পড়ার সময়।
মা বন্ধু কিন্তু বাবা কেমন ছিলেন? ‘মা বন্ধু ছিলেন কিন্তু অনেক শাসন করতেন। কিন্তু বাবা হচ্ছে আমার জোশ বাবা। মেয়েরা নরমালি বাবার প্রতি দুর্বল হয়। মা-ও আমাকে অনেক ভালোবাসে কিন্তু বাবা হচ্ছেন একটু অন্যরকমের। ধরেন মাকে লুকিয়ে গল্প করছি, বা বাড়িতে গেস্ট এসেছে ভাল লাগছে না মা-কে বললাম মা আমি বাইরে যাচ্ছি তো বাবাও বলছে মা আমি তোকে নামিয়ে দিয়ে আসছি। ব্যস দুজনেই বেরিয়ে এলাম।’
তারকা প্রভা পরিবারের কাছে কেমন? ‘রাগি, জেদি আর সর্বোপরি আমি বোকা একজন মানুষ। মানে এগুলো শুনতে শুনতে আমি বড় হয়েছি। আর তারকা ইমেজ বাসায় বোন প্রভাব ফেলে নি। কারণ আমাদের ভাইবোন সবাই ভাল ভাল প্রফেশনে আছে। সে কারণে তারকা প্রভার বাসায় কোন পাত্তা নেই। তবে বাবার ডোনাররা যখন আসে তখন বাবা প্রাউডলি বলে শি ইজ অ্যাক্টর। তখন অনেক ভাল লাগে।’

Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.