সর্বশেষ সংবাদ

"বড় খবর ব্রিটনির"

হাজারো খবরের ভিড়ে যখন কোনো তারকার সাফল্যের খবর আলোচনায় আসে, সে খবরটিকে ভক্তরা ‘বড় খবর’ হিসেবেই দেখেন। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে পপসংগীত তারকা ব্রিটনি স্পিয়ার্সের বড় কোনো খবর ছিল না। অশান্তি, ছাড়াছাড়ি, বিয়ের সংকট— ব্রিটনির ব্যক্তি জীবনের এসব নেতিবাচক বিষয় নিয়েই খবর ছেপেছে সংবাদমাধ্যমগুলো। দীর্ঘদিন ধরে ব্রিটনি স্পিয়ার্সও বিষয়টি ভালো করেই জানেন। সাফল্যের সামান্য কোনো খবরও তাই তাঁর কাছে এখন অনেক ‘বড়’।

 


সম্প্রতি ই অনলাইন এক খবরে জানিয়েছে, জনপ্রিয়তা বাড়ার কারণে লাস ভেগাসের প্ল্যানেট হলিউডে ব্রিটনির ‘পিস অব মি’ কনসার্টটি আরও বেশ কিছুদিন চলবে। আর এদিকে, ৩৩ বছর বয়সী ব্রিটনিও তাঁর ভক্তদের জানিয়েছেন, আয়োজকদের সঙ্গে এ সংক্রান্ত এক চুক্তিও তিনি সই করে ফেলেছেন।
ই অনলাইনকে ব্রিটনি জানিয়েছেন, তাঁর লাস ভেগাসে থাকার মেয়াদ আরও বেশ কিছুদিন বাড়ছে। ব্রিটনির ‘পিস অব মি’-এর এই সাফল্য, কনসার্টের এই সময় বাড়ার বিষয়; এটাই এখন ব্রিটনি আর তাঁর ভক্তদের কাছে অনেক ‘বড় খবর’!
ব্যক্তিগত জীবনে নানা জটিলতায় বিব্রত ও মানসিক ভোগান্তিতে থাকা এই সংগীত তারকা লাস ভেগাসের প্ল্যানেট হলিউডে বেশ কিছুদিন ধরেই তাঁর কনসার্টে গাইছেন। সম্প্রতি ব্রিটনি জানিয়েছেন, সাফল্য আসছে সেখানে। কাজেই, আরও কিছুদিন এখানেই গাইবেন তিনি। আয়োজকেরাও এমন সবুজ সংকেতই দিয়েছেন।

‘পিস অব মি’ কনসার্ট নিয়ে ব্রিটনির সংগীত সফরের শুরু হয়েছিল ২০১৩ সালের শেষের দিকে।
এদিকে, প্রেম ও সম্পর্ক নিয়ে সংকটে থাকা ব্রিটনিকে তাঁর বাবা পরামর্শ দিয়েছেন— নতুন কোনো সম্পর্কে আপাতত না জড়িয়ে এখন শুধু গানে মনোযোগ দিতে। ‘সর্বশেষ’ প্রেমিক চার্লি এবারসোলের সঙ্গে ব্রিটনির সম্পর্কের ইতি ঘটেছে। আর একের পর এক সম্পর্কের এই ভাঙা-গড়া ব্রিটনির গানের ক্যারিয়ারে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে।
প্রসঙ্গত, ‘প্রিটি গার্ল’ খ্যাত সংগীত তারকা ব্রিটনি স্পিয়ার্স জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় ২০০২ সালে একটি রেস্তোরাঁ চালু করেছিলেন। কিন্তু শুরুর চার মাসের মধ্যেই না চলার কারণে সে রেস্তোরাঁটি বন্ধ করে দিতে হয়েছিল তাঁকে।
Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.