সর্বশেষ সংবাদ

তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

নীলফামারীতে তৃতীয় শ্রেণীর এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। সোমবার এ ঘটনা ঘটে। শিশুটিকে সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জানা গেছে, জেলা সদরের কুন্দুপুকুর ইউনিয়নের লালপাড়া গ্রামের ভ্যানচালক বশির উদ্দিনের মেয়ে স্থানীয় শালহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। সোমবার স্কুলের টিফিনের সময় স্কুল সংলগ্ন মধ্য শালহাটি বাজারের মুদি দোকান ব্যবসায়ী মৃত বুদারু মাহমুদের ছেলে ইব্রাহিম (৫৫) বিস্কুট খাওয়ার লোভ দেখিয়ে দোকানের ঝাপ ফেলে শিশুটিকে ধর্ষণ করে।

 

 তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার


স্কুলের অপর শিশুরা ঘটনাটি টের পেয়ে স্কুলের শিক্ষকদের জানালে সেখান থেকে শিশুকে উদ্ধার এবং ধর্ষক ইব্রাহিমকে আটক করে। একটি প্রভাবশালী মহল ঘটনাস্থলে এসে সকলকে হুমকি দিয়ে শিশুসহ ধর্ষককে তাদের জিম্মায় নেয়। এরপর ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে ধর্ষণের শিকার শিশুটির পরিবারকে জিম্মি করে রাখে।
নীলফামারী সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা নারী উন্নয়ন ফোরামের সভাপতি আরিফা সুলতানা লাভলী জানান মঙ্গলবার সকাল ১১টায় এলাকাবাসীর পক্ষে জনৈক এক ব্যক্তি তাকে বিষয়টি অবগত করেন। এরপর তিনি নারী ফোরামের সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান। দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে সত্যতা পেয়ে তিনি বিষয়টি জেলা প্রশাসক জাকীর হোসেন, পুলিশ সুপার জাকির হোসেন খান, সদর থানার ওসি শাহজাহান পাশাকে অবগত করলে পুলিশের সহায়তায় ঘটনাস্থল থেকে ধর্ষণের শিকার শিশুটিসহ তার পিতাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়। এ সময় ধর্ষক ও প্রভাবশালীরা গা ঢাকা দেয়। শিশুটিকে উদ্ধারের পর সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
নীলফামারী সদর থানার ওসি শাহজাহান পাশা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন এ ঘটনায় শিশুটির পিতা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন।
Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.