সর্বশেষ সংবাদ

কঙ্গনা পারতেন না ইংরেজি

মুখের ওপর কঠিন সত্য বলায় ঠোঁটকাটা হিসেবেই পরিচিত বলিউড তারকা ‘কুইন’খ্যাত অভিনেত্রী কঙ্গনা। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যে অনুষ্ঠিত ‘উইমেন ইন দ্য ওয়ার্ল্ড সামিট’ এ অংশগ্রহণ করতে এই অভিনেত্রী উড়াল দিয়েছিলেন লন্ডনে। সেখানেই তাঁর জীবনের শুরুর দিককার সংগ্রামের গল্প সবার সঙ্গে ভাগাভাগি করেছেন তিনি। উপস্থিত সবাইকে কঙ্গনা জানিয়েছেন, বলিউডে তাঁর আজকের এ অবস্থান কোনো রূপকথার গল্প নয়।

 

 





ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত এই অভিনেত্রীর জন্ম ও বেড়ে ওঠা হিমাচল প্রদেশের ছোট্ট এক শহরে। আজকে যিনি বলিউডের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেত্রীদের একজন; তাঁর জীবনের শুরুর দিকটা কিন্তু এমন চাকচিক্যময় ছিল না।

গত শুক্রবার লন্ডনের সম্মেলনে কঙ্গনা বলেন, ‘এ কোনো রূপকথার গল্প নয়। আজ আমি যেমন আছি একসময় মোটেও এমন ছিলাম না। একসময় ইংরেজিতে একটা শব্দ পর্যন্ত বলতে পারতাম না আমি।’ তিনি বলেন, ‘বিলেতে আমার এ বিষয়টা হয়তো অনেকেই মেনে নেবেন, কিন্তু মুম্বাইতে যদি কেউ ইংরেজিতে কথা না বলতে পারে তাহলে মানুষ অবশ্যই বলবে, ইংরেজি না জেনেই হিন্দি ছবিতে কীভাবে একজন অভিনয়ের আশা করে!’

বরাবরই কথায় কোনো রাখঢাক না করা এ অভিনেত্রী উপস্থিত দর্শকদের এও জানিয়ে দেন, এক সময় কী বেপরোয়া জীবনই না যাপন করতে হয়েছে তাঁকে। একটা সময়ে এমনও হয়েছে যে, তাঁকে ফুটপাতে শুয়ে; না খেয়েই দিন কাটাতে হয়েছে।


কঙ্গনা বলেন, ‘এক সময় যে মেয়েকে সবাই গ্রাম্য এক উদ্ভট উচ্চারণে কথা বলা মেয়ে হিসেবেই দেখত, আজ সে বলিউডের অন্যতম একজন ফ্যাশন আইকন।’

নিজের এবং নারী জাতির ওপর দারুণ আত্মবিশ্বাসী এই অভিনেত্রী অবশ্য ভারতে নারীর অবস্থানের বিষয়টা নিয়ে ভীষণ হতাশ। ভারতে নারীর নিরাপত্তার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় না এটা সম্ভব হবে। এ বিষয়ে কিছু আশা করাটাও যেন অবাস্তব।’

‘উইমেন ইন দ্য ওয়ার্ল্ড সামিট’-এ বলিউডের তারকা কঙ্গনা রনৌত ছাড়াও অংশ নিয়েছিলেন বিশ্বের বিভিন্ন অংশ থেকে আসা সফল নারীরা। সম্মেলনে হলিউড অভিনেত্রী নিকোল কিডম্যানও অংশ নিয়েছিলেন।

Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.