সর্বশেষ সংবাদ

মৌসুমী চ্যালেঞ্জ

শীলা যাত্রাদলের নর্তকী। একসময় প্রভাবশালী সজীবের চোখ পড়ে তার ওপর। বিয়ের প্রলোভন দেখায়। পদে পদে বিপদ আর প্রতারিত হয় মেয়েটি। একদিন শীলা এই পৃথিবী ছেড়ে চলে যায়। জালালের গল্প ছবিতে শীলার চরিত্রের ভাবনা। গত ৪ সেপ্টেম্বর প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ছবিটি। পরিচালক আবু শাহেদ ইমন। ছবিতে শীলা চরিত্রে অভিনয় করেছেন মৌসুমী হামিদ। সজীব চরিত্রে মোশাররফ করিম আর জালাল চরিত্রে আরাফাত।

এর আগে মৌসুমী হামিদ অভিনীত দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। ৭ আগস্ট সাফিউদ্দীন সাফির ব্ল্যাকমানি আর ২৮ আগস্ট সাইদুর রহমানের ব্ল্যাকমেল।

 

 

মৌসুমী হামিদের সঙ্গে কথা হবে। ৪ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় মুঠোফোনে যোগাযোগ হয় তাঁর সঙ্গে। জানালেন, তিনি বলাকা, মধুমিতা, স্টার সিনেপ্লেক্সে জালালের গল্প ছবির প্রদর্শনী দেখেছেন। যাচ্ছেন শ্যামলী সিনেপ্লেক্সে।
সেদিন রাতে মৌসুমী হামিদের সঙ্গে কথা হবে নিকেতনে। নির্ধারিত সময়ে তিনি পৌঁছে যান এক রেস্তোরাঁয়। জালালের গল্প ছবি নিয়ে তাঁর মাঝে দারুণ উত্তেজনা। বললেন, ‘ছবি শেষে অনেক দর্শকের চোখই ভেজা দেখেছি।’
ততক্ষণে মৌসুমী হামিদের চোখও ভিজে গেছে। কিছুক্ষণ চুপ। নিজেকে সামলে নিতে একটু সময় লেগেছে। ছবিতে তাঁর অভিনয়ের অভিজ্ঞতার প্রসঙ্গ উঠতেই বললেন, ‘জালালের গল্প ছবির যখন শুটিং হয়, তাঁর কিছুদিন আগে বাস্তবেও আমি প্রতারিত হয়েছিলাম। যদিও আমার গল্পটি অন্য রকম। শীলার মনের কষ্ট, আবেগ; শুটিংয়ের সময় তা আমার মাঝেও ঘুরপাক খাচ্ছিল। ফলে চরিত্রটি ফুটিয়ে তুলতে খুব সহজ হয়। প্রতিটি কান্নার দৃশ্যের জন্য আমাকে আলাদা করে প্রস্তুতি নিতে হয়নি। স্বাভাবিকভাবেই কেঁদেছি।’
এদিকে ব্ল্যাকমানি আর ব্ল্যাকমেল বাণিজ্যিক ঘরানার ছবি। দুটি ছবিতেই মৌসুমী হামিদের অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে। ব্ল্যাকমানি ছবিতে সাধারণ মেয়ে আর ব্ল্যাকমেল ছবিতে তিনি অ্যাকশন ধাঁচের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। মৌসুমী বলেন, ‘ব্ল্যাকমেল ছবিতে আমার চরিত্রের মধ্যে কাজ করার জায়গা ছিল।’
পরপর তিনটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। এরপর মৌসুমী হামিদ কী ভাবছেন? বললেন, ‘গোড়াতে খুব চ্যালেঞ্জ মনে হয়েছিল। তখন চ্যালেঞ্জকে চ্যালেঞ্জ করেছিলাম। এখন মনে হচ্ছে পারব।’
মৌসুমী হামিদ আরও দুটি ছবির কাজ করছেন। পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনি ২ ছবির শুটিং শেষ। শোধ প্রতিশোধ ছবির দ্বিতীয় ধাপের কাজ শুরু হবে শিগগিরই।
এদিকে ছোট পর্দায়ও কাজ থেমে নেই এই লাক্স-তারকার। ঈদে অনেকগুলো নাটকে কাজ করছেন। তিনটি ধারাবাহিক নাটকের কাজ করছেন। আল হাজেনের অলসপুর, কমল চৌধুরীর বাই ফোকাল আর রায়হান খানের অর্কিড। এই তিনটি ধারাবাহিকই এখন দেখানো হচ্ছে।
অভিনয়ের ক্ষেত্রে ছোট পর্দা কিংবা বড় পর্দাকে এখনই আলাদা করে দেখছেন না মৌসুমী হামিদ। বললেন, ‘সব মাধ্যম আমার কাছে একই রকম। আলাদা করে দেখতে চাই না। এই দুই মাধ্যমেই আমি একজন অভিনয়শিল্পী হতে চাই।’
Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.