সর্বশেষ সংবাদ

শেষ পর্যন্ত স্ত্রী নির্যাতনের মামলা হল জনি ডেপের বিরুদ্ধে!

Cases-of-violence-against-women-until-the-end-of-the-Johnny-deep

৫২ বছরের জনি ডেপ ৩০ বছরের অ্যাম্বার হার্ডকে ভালোবেসে বিয়ে করেন। তবে বিয়ের দেড় বছরের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়ে গেল এই হলিউড তারকা দম্পতির। কারণ হিসেবে জানা গেল, জনি ডেপ দ্বারা ঘরোয়া নির্যাতনের শিকার হয়েছেন অ্যাম্বার।


হলিউড অভিনেতার বিরুদ্ধে তার স্ত্রীর উপর আই ফোন ছুঁড়ে ফেলার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ করার পর শুক্রবার লস অ্যাঞ্জেলসের তাদের বিবাহ বিচ্ছেদের বিচারক ‘পাইরেটস অব দ্যা ক্যারিবিয়ান’ খ্যাত অভিনেতাকে তার প্রাক্তন স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ডের কাছ থেকে দূরে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। জানা যায়, আদালতে অ্যাম্বার একটি ছবি দেখান যাতে তার মুখ ও চোখে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে। অভিযোগে বলা হয়েছে, স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ার সময় ডেপ তার মোবাইল ফোন অ্যাম্বারের দিকে ছুঁড়ে মারেন।

আদালত জনি ডেপকে অ্যাম্বারের সঙ্গে যোগাযোগের ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বলে অ্যাম্বারের আইনজীবী জানিয়েছেন। এছাড়াও ডেপের বিরুদ্ধে মদ্যপ অবস্থায় মুখে আঘাত করার অভিযোগ এনেছেন অ্যাম্বার। অভিযোগপত্রে তিনি লেখেন, ‘আমি সবসময় ভয়ে থাকতাম, জনি যে কোন সময় আমার উপর শারীরিক ও মানসিকভাবে অত্যাচার করতে পারে।’ ১৫ মাসের সংসারজীবনে বেশ কয়েকবার এ ধরণের ঘটনা ঘটেছে বলেও দাবি অভিনেত্রীর।



Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.