সর্বশেষ সংবাদ

বলিউডের (Bollywood) স্ত্রীভক্ত তারকারা

অর্থ আর খ্যাতি তো রয়েছেই, সেইসঙ্গে ভালোবাসারও কমতি নেই হিন্দি সিনে জগতের তারকা দম্পতিদের ঘরে। সুন্দরী স্ত্রীদের তাই আদর-সোহাগে ভরিয়ে রাখতে কোনো রাখঢাক নেই এই বলিউডি (Bollywood) তারকাদের। স্ত্রীদের কথার দামও সবসময়ই দেন তারা। চলুন, জেনে নিই এমনই কয়েকজন ভারতীয় অভিনেতার কথা, যারা স্ত্রীদের যত্নে একচুলও ছাড় দেননা।

বলিউডের (Bollywood) স্ত্রীভক্ত তারকারা

সাইফ আলি খান :পতৌদির নবাব বলে কথা! বেগম কারিনা কাপুর-এর যত্ন-আত্তি করেন একেবারে বাদশাহী কায়দায়। বেবো নিজেও বলে বেড়ান, সাইফ-এর মতো্ স্বামী কেবল ভাগ্যবতীদের কপালেই জোটে। ছেলে তৈমুর-এর জন্ম দেওয়ার আগে পুরো গর্ভকালীন সময়ে সাইফ আদরের চাদরে মুড়িয়ে রেখেছিলেন স্ত্রীকে। ওই নয় মাস কাজ থেকে কোনো বিরতি নেননি কারিনা; আর স্ত্রীর এই সিদ্ধান্তে সমর্থনই জুগিয়েছেন সাইফ। আবার হবু মা আর বাচ্চার যেন কোনো ক্ষতি না হয়, সেদিকেও রেখেছেন সতর্ক দৃষ্টি।

করন সিং গ্রোভার : ২০১৬ সালে ধুমধাম করে বিপাশা বসুকে বিয়ে করেছেন তিনি। ভালোবেসে বিপাশাকে ‘মাঙ্কি’ বলে ডাকেন তিনি। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সর্বত্র ছড়িয়ে আছে তাদের ভালোবাসার নিদর্শন। স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসা এতোটাই যে, বিপসকে ছেড়ে কোথাও যেতে নারাজ তিনি। এতে করে বন্ধুরা নারাজ হলেও তাতে থোড়াই কেয়ার করনের।

অভিষেক বচ্চন : স্ত্রী যখন সাবেক বিশ্বসুন্দরী, তখন তার প্রতি অনুরক্ত না হয়ে উপায় আছে? স্ত্রী ঐশ্বরিয়া রাই ও মেয়ে আরাধ্যর প্রতি ভালোবাসার কারণে অবসরের সময়টা ঘরেই কাটান বচ্চনপুত্র। এরপরও স্ত্রীর সঙ্গে একান্তে সময় কাটাতে এবারের নববর্ষ উদযাপন করেছেন দুবাইতে।

অক্ষয় কুমার : বলিউডের ‘নম্বর ওয়ান খিলাড়ি’কে যখন সাতপাকে বেঁধেছিলেন টুইঙ্কল, তখনই বোঝা গিয়েছিল, ভালোবাসার খাতিরে এবার স্বেচ্ছাচারিতাকে চিরতরে বিদায় জানিয়েছেন অক্ষয়। বিয়ের পর থেকেই যে অক্ষয়ের ক্যারিয়ার গ্রাফ উর্ধ্বমুখী, তার কারণ স্ত্রীর সঙ্গে পরামর্শ না করে কোনো কাজ হাতে নেন না তিনি। আর টুইঙ্কলও এককালের ‘বিশ্বপ্রেমিক’কে মায়ার বাঁধনে শক্ত করেই বেঁধেছেন। তার প্রমাণ, বিয়ের পর থেকে অক্ষয়ের আর কারও সঙ্গে প্রেমে না জড়ানো!

শাহিদ কাপুর : বিয়ে হওয়ার পর থেকে কোনো অনুষ্ঠানেই একা যাননি শাহিদ কাপুর। এমনকি করন জোহরের চ্যাট শো ‘কফি উইথ করনে’ও হাজির হয়েছিলেন স্ত্রী মীরাকে সঙ্গে নিয়ে। সেখানে তাদের খুনসুটি নজর কেড়েছে বেশ। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও শাহিদের স্ত্রী-প্রেম লক্ষ্যণীয়। একবার তো স্ত্রীর স্নানের ছবি শেয়ার করে পড়েছিলেন সমালোচনার মুখেও। তবে তাতেও দমে যাননি শাহিদ। এখন মীরার পাশাপাশি মেয়ে মিশাকে নিয়েও তার ভালোবাসা উপচে পড়ে টুইটার, ফেইসবুক আর ইন্সটাগ্রামে।



Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.