সর্বশেষ সংবাদ

বাংলা সিরিয়াল (Serial) এর গল্পে এখন পরিবর্তন

কলকাতার টিভি চ্যানেলে প্রচারিত বাংলা সিরিয়াল  (Serial) এর গল্পে এখন বেশ পরিবর্তন এসেছে। 

বাংলা সিরিয়াল (Serial) এর গল্পে এখন পরিবর্তন

ভূতের গল্প, গোয়েন্দা আর রাঁধুনিদের পাশাপাশি এবার জায়গা করে নিল সাংবাদিকতার গল্প। মূলত সংবাদ মাধ্যমকে কেন্দ্র করে নির্মিত হয়েছে নতুন ধারাবাহিক 'স্বপ্ন উড়ান'। নাটকের প্রধান দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন রাহুল এবং নতুন মুখ ঐন্দ্রি্রলা বসু। ধারাবাহিকের গল্পে দেখা যাবে মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে ঝিমলি [ঐন্দ্রিলা] একটু ভীতু প্রকৃতির। দাদা অনিরুদ্ধ তার জীবনের সবচেয়ে বড় ভরসা। সাব ইনসপেক্টর অনিরুদ্ধও চেষ্টা করে বোনকে আগলে রাখতে। ঝিমলির জীবনে প্রেম নেই, তবে ক্রাশ আছে- সংবাদিক রূপায়ণ সেন। এই মুহূর্তে কলকাতা শহরে রূপায়ণ [রাহুল] একজন তারকা সাংবাদিক। 'লাইভ বাংলা আজকে' চ্যানেলের টিআরপির পেছনে রয়েছে 'রূপায়ণ লাইভ' অনুষ্ঠানটি। এ অনুষ্ঠানেই একের পর এক সামাজিক দুর্নীতি এবং অন্যায়ের কালো মুখোশ খুলে দেয় রূপায়ণ। রূপায়ণের দাদা সুশোভন চক্রবর্তীর হাতে নিউজ চ্যানেলের জন্ম হলেও খ্যাতি আসে রূপায়ণের বাবা বিশ্বরূপ সেনের হাতে। বিশ্বরূপের দুই ছেলে অর্ণব এবং রূপায়ণই এখন চ্যানেলের হাল ধরেছে। কিন্তু চ্যানেলের নাম এবং টিআরপি বজায় রাখতে অসৎ পথে হাঁটতে দ্বিধাবোধ করেন না রূপায়ণের বাবা এবং দাদা। তৈরি হয় সাজানো খবর বা প্রয়োজনে 'পেইড নিউজ'! এখানেই দ্বন্দ্বের সূত্রপাত- রূপায়ণের সাংবাদিকতা যে সত্যের পথে হাঁটে। এদিকে অনিরুদ্ধ কোনো এক 'সাজানো' চক্রান্তে মারা গেলে দাদার চাকরিটা পায় ঝিমলি। ভীতু মেয়েটাই কনস্টেবল হয়ে শপথ নেয় দাদার খুনিদের সাজা দেবে। নতুন জীবনে চলার পথে একসময় রূপায়ণের সঙ্গে ঝিমলির দেখা হয়। এভাবেই এগিয়ে চলে গল্প। 

এ ধারাবাহিকে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন অরিজিৎ গুহ [সুশোভন], অনুরাধা রায় [কমলা], কৃষ্ণ কিশোর মুখোপাধ্যায় [বিশ্বরূপ], বিদীপ্তা চক্রবর্তী [মধুরা], তথাগত মুখার্জি [অর্ণব] প্রমুখ। 

'তুমি আসবে বলে' ধারাবাহিকের পর রাহুল আবার টেলিভিশনে ফিরলেন 'স্বপ্ন উড়ান' দিয়ে। অভিনয় জগতে আসার আগে রাহুল নিজেও সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। বড় পর্দায় 'টেক ওয়ান'-এ তিনি সাংবাদিকের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। কিন্তু রূপায়ণ সম্পর্কে তিনি বলেন, 'আলাদাভাবে কোনো প্রস্তুতি না নিলেও রূপায়ণ সিং অপারেশন তথা ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিজম করে। তাই এখানে আমাকে 

বিভিন্ন 'লুকে' দর্শক দেখতে পাবেন। এ ধারাবাহিকে আমার মেকআপের ওপর বিশেষভাবে জোর দেওয়া হচ্ছে।' মালদার মেয়ে ঐন্দ্রিলার শুরুটা মডেলিং দিয়ে। তারপর অডিশনের মাধ্যমে এ ধারাবাহিকে সুযোগ পেয়েছেন। প্রথম ধারাবাহিকের অভিজ্ঞতা নিয়ে তিনি বলেছেন, 'খুব ভালো লাগছে। এখনও টেনশন কাটিয়ে উঠতে পারিনি'। একই সঙ্গে প্রথম ধারাবাহিকে রাহুলের বিপরীতে সুযোগ পাওয়াটাও আমার ভাগ্যই বলতে হয়। বুঝতে অসুবিধা হলেই রাহুল আমাকে নিজের মতো বুঝিয়ে দিচ্ছেন।' সিদ্ধার্থ পালের পরিচালনায় ধারাবাহিকটি জি-বাংলায় শনি থেকে সোম প্রতিদিন বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় প্রচার হচ্ছে।



Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.