সর্বশেষ সংবাদ

আমিও আমার বাচ্চাদের খাইয়ে দিতাম : KOBORI

অল্প বয়সী মায়েদের সঙ্গে ছেলেমেয়েদের খুব মজার বন্ধুত্ব হয়। আমার দ্বিতীয় সিনেমা ‘বাহানা’ পাকিস্তানের প্রথম সিনেমাস্কোপ ছবি। আমি নায়িকা KOBORI। টেডি প্যান্ট, গায়ে টপ, ম্যাগি হাতা, পারলারে চুল বাঁধতে হয়েছিল। টিনএজ নায়িকা। আমি তখন এক বাচ্চার মা। আমার বড় ছেলে অঞ্জন। তাকে তখন ব্রেস্টফিড করি 

আমিও আমার বাচ্চাদের খাইয়ে দিতাম : KOBORI

‘বাহানা’র শুটিং হয়েছিল করাচিতে। রাস্তায় শুটিং করতে করতে বাচ্চাকে দুধ খাওয়ানোর তাগিদ অনুভব করি। জহির ভাইকে (জহির রায়হান) বললাম, আমি একটু হোটেলে যাব। ওয়াশরুমে। কারণ, করাচির রাস্তায় শুটিং চলছিল বিভিন্ন লোকেশন। আমাকে গাড়ি বের করে হোটেলে পাঠিয়ে দিলেন। 
তাড়াতাড়ি আমি এসেই আমার বাচ্চাকে ফিড করালাম। এই হলো মা। সেলিব্রেটি তো পর্দার কবরী, আর মা তো মা-ই। ছোটবেলায় আমার বাচ্চাদের সঙ্গে চোর-পুলিশ খেলতাম। ওরা আমাকে গুলি করত আর বলত, ‘মরে যাও।’ আমি মাটিতে শুয়ে মিছেমিছি মরে গেলে ওরা কাঁদত। মায়ের সঙ্গেও আমার রয়েছে কত স্মৃতি! মায়ের হাতে খাওয়ার মধ্যে কী যে তৃপ্তি! আমিও আমার বাচ্চাদের খাইয়ে দিতাম। যখন ওরা ক্লাস ফাইভ-সিক্সে পড়ত, ওরা দুই ভাই রোজা রাখত (অঞ্জন আর রঞ্জন) দুই ঘরে। ভোররাতে সাহ্‌রি খেতে যখন উঠতাম, তখন একটা প্লেটে ভাত মেখে এ ঘর-ও ঘর দৌড়াদৌড়ি করতাম। একবার এ ঘরে, আরেকবার ও ঘরে গিয়ে দুজনকে খাওয়াতাম। ভিটামিনটা পর্যন্ত খাইয়ে দিতাম, যাতে ওদের কোনো কষ্ট না হয়। বাচ্চা মানুষ করতে হলে কত যে ত্যাগ স্বীকার করতে হয়, একমাত্র মা-ই বলতে পারে।

এখন তো যুগ বদলেছে, তেমনি সামাজিক অবস্থারও পরিবর্তন হয়েছে। কত যে অঘটন ঘটছে! বাচ্চাদের সময় দিতে হয়। মায়ের আদর, বাবার শাসন—দুটোই দরকার। তা ছাড়া ডিভোর্সের হার যেভাবে বেড়েছে, বাবা আরেকটা বিয়ে করেন, মা-ও আরেকটা বিয়ে করেন। মাঝখানে বাচ্চার জীবন দুর্বিষহ। মা-বাবার উচিত অন্তত বাচ্চাদের জন্য এই দায়িত্ব তাঁরা যেন পালন করেন। মাদকদ্রব্য, জঙ্গিবাদ—এসবের প্রভাবে কত যে বাচ্চা বিপথে চলে যায়, এর কোনো হিসাব নেই। সুতরাং বাচ্চা নেওয়ার আগেই বাবা-মা সচেতন হোন। আপনারা পরিণত বয়সের মা-বাবা, আমাদেরই ছাড় দিতে হবে। কাউকে না কাউকে। এতে আপনারা কেউ ছোট হবেন না। কারণ, সন্তানটি তো আপনাদের দুজনের। আমাদের বাচ্চারা যেন দুধে-ভাতে বড় হয়। 
বন্যেরা বনে সুন্দর
শিশুরা মাতৃক্রোড়ে।



Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.