সর্বশেষ সংবাদ

বাংলাদেশ দলের কাছে প্রত্যাশা বেশি : Samia Afrin

Samia Afrin। উপস্থাপক ও অভিনেত্রী। আজ তার উপস্থাপনায় জিটিভিতে প্রচার হবে ক্রীড়া বিশ্লেষণধর্মী অনুষ্ঠান 'ক্রিকেট এক্সট্রা'। চ্যাম্পিয়ন ট্রফির ক্রিকেট ম্যাচ ও অন্যান্য বিষয়ে কথা বলেছেন তিনি_

বাংলাদেশ দলের কাছে প্রত্যাশা বেশি : Samia Afrin

'ক্রিকেট এক্সট্রা' নিয়ে দর্শকের প্রতিক্রিয়া কী?

দর্শকের কাছে অসম্ভব সাড়া পেয়েছি এই অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করে। অনুষ্ঠানে যারা অতিথি হয়ে আসেন তারা সবাই সাবেক খেলোয়াড় নয়তো ক্রিকেটবোদ্ধা। তাদের আলোচনায় আগের ভুল-ত্রুটি, দল নির্বাচন থেকে শুরু করে পরবর্তী খেলা নিয়ে থাকে নানা মতামত। তাদের অভিমত জানতে অনেকে অনুষ্ঠানটি দেখেন। হয়তো এ কারণে 'ক্রিকেট এক্সট্রা' দর্শকের মনোযোগ কাড়তে পেরেছে। 

নিজ দেশের খেলা থাকলে কি পক্ষপাতিত্ব করেন?

অন্যান্য দেশের খেলার অনুষ্ঠানগুলো দেখলে বুঝবেন, তারাও কিন্তু নিজ দেশের পক্ষে কথা বলেন। আমরাও আবেগের বশে অনেক সময় নিজের মত প্রকাশ করে ফেলি। পক্ষপাতিত্ব আপনা আপনি চলে আসে। কিন্তু যেদিন বাংলাদেশের খেলা থাকে না, সেদিন নিরপেক্ষভাবেই কথা বলার চেষ্টা করি। যদিও কেউ কেউ প্রশ্ন করেন, উপস্থাপনা করতে এসে নিজের মত কেন প্রকাশ করি? তখন আসলে বোঝানো কঠিন, অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করলেও নিজ দেশের খেলায় নিরপেক্ষ থাকা সম্ভব হয় না। মাঝে মাঝে আবেগের কাছে পরাজিত হতে হয়। 

বাংলাদেশের খেলা নিয়ে আপনার মতামত কী?

বাংলাদেশ দলের কাছে প্রত্যাশা বেশি। কারণ কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল ভালো খেলছে। চ্যাম্পিয়ন ট্রফির প্রথম খেলায় জয়টা হাতছাড়া হয়েছে ঠিকই, কিন্তু খেলোয়াড়রা আমাদের নিরাশ করেননি। ভালো খেলার ধারাবাহিকতা ধরে খেলছেন, এটাই বড় কথা। 

অভিনেত্রী সামিয়া আফরিনকে অনেক দিন দেখা যাচ্ছে না, এর কারণ কী?

আগেভাগেই বলে রাখি, আমি কিন্তু অভিনেত্রী নই। এ জন্য তাকে নিয়মিত অভিনয়ে দেখা যাবে, এটা ভাবার কোনো কারণ নেই। এ কথা ঠিক যে, অভিনয়ের প্রতি এক ধরনের ভালোবাসা আগেও ছিল, এখনও আছে। এ জন্য শত ব্যস্ততার মাঝেও বছরে দু'একটা নাটকে অভিনয় করতাম। কিন্তু জিটিভির বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন নিয়ে এত ব্যস্ত হয়ে পড়েছি, চাইলেও আর অভিনয়ের সুযোগ পাচ্ছি না। 

এবার ঈদে কি তাহলে অভিনয়ে দেখা যাবে না?

সে সম্ভাবনা একেবারেই নেই। কারণ জিটিভির জন্য ঈদ অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা শুরু করে নির্মাণের যাবতীয় বিষয় দেখভাল করছি। চ্যানেলের কাজ নিয়ে এত ব্যস্ত যে, চাইলেও অন্যকিছু করার সুযোগ নেই। তবে নাটকে অভিনয় না করলেও ঈদের কয়েকটি অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে থাকব। 

ক্রিকেটের পাশাপাশি অন্য কোনো অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা আছে?

দর্শক প্রতিনিয়ত নতুন কিছু চায়। তাদের কথা ভেবেই আমরা চাইছি, ভিন্ন আঙ্গিকের আরও কিছু অনুষ্ঠান নির্মাণ করতে। জিটিভির আয়োজন শুধু ক্রিকেটের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে_ এটা ভাবার কোনো কারণ নেই। ক্রিকেটের পাশাপাশি ফুটবল, নৌকাবাইচ, কাবাডিসহ আরও বেশকিছু খেলা নিয়ে অনুষ্ঠান করার পরিকল্পনা আছে। 



Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.