সর্বশেষ সংবাদ

Habib Wahid ও তিশাকে প্রশ্নের তির রেহানের

গায়ক ও সংগীত পরিচালক Habib Wahid-এর ওপর বেজায় চটেছেন সাবেক স্ত্রী রেহান চৌধুরী। সেটার প্রমাণ তাঁর ফেসবুক স্ট্যাটাসেও পাওয়া যাচ্ছে। হাবিবের সাবেক এই স্ত্রী তাঁর প্রতি দুটি প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন। নিজের ফেসবুকে একটি পোস্টের মাধ্যমে এ প্রশ্ন ছোড়েন রেহান। 

Habib Wahid ও তিশাকে প্রশ্নের তির রেহানের

মডেল ও অভিনয়শিল্পী তানজিন তিশার সঙ্গে হাবিব ওয়াহিদের প্রেমের সম্পর্কের বিষয়টি সম্প্রতি প্রকাশ্যে চলে এলে মুখ খুলতে শুরু করেন সাবেক স্ত্রী রেহান। একই সময় হাবিব ও তানজিন তিশার দেওয়া ফেসবুক স্ট্যাটাসে পরিষ্কার হয়ে যায় তাঁদের সম্পর্কের ব্যাপারটি। হাবিব, তিশা ও রেহান একে অপরকে জড়িয়ে কিছু কথাও বলেন। এর মধ্যে একটি কথায় হাবিব বলেছিলেন, ‘ডিভোর্সের কয়েক মাস পর এসব কথা রেহানই বলল, এটাও আমার কাছে আশ্চর্যজনক। বলার হলে আরও আগেই বলত। কারণ, যা-ই হোক না কেন, আমি তো জোর করে ডিভোর্স করতে বলিনি তাঁকে। সমঝোতার মাধ্যমেই তা হয়। তাহলে এখন এত কাদা ছোড়াছুড়ি কেন? এসব করে কারওই তো কোনো লাভ দেখি না।’ 

হাবিবের এই স্ট্যাটাসের পরিপ্রেক্ষিতে চটে গিয়ে রেহান তাঁর ফেসবুকে লেখেন, ‘আপনি স্ট্যাটাসে খুব সাহসের সঙ্গে কথা বলেন! আপনি আশ্চর্য হচ্ছেন যে কেনইবা আমি বিবাহবিচ্ছেদের পর এসব বলছি? কথাটা কি বুঝে লিখছেন? তাহলে আমি আপনাকে বলতে চাই, আপনার কোন আইনে আছে যে বিবাহবিচ্ছেদের পর একটি মেয়ে গালি খেলেও চুপ করে সহ্য করবে অথবা করতে হবে? আমি বরং প্রতিবার আশ্চর্য ছিলাম যে আমাকে কেন এভাবে বাজে গালি দিয়ে আক্রমণ করে আপনার প্রিয়তমা? এটার উত্তর কি দিয়েছেন এখনো?’ 

হাবিবের পাশাপাশি তানজিন তিশার কাছে রেহানের প্রশ্ন ছিল, ‘তোমার স্ট্যাটাসে লিখেছ, একবার গালি দিয়েছ। কতবার গালি দিয়েছে, তা তুমি, আমি আর হাবিব তো জানি। প্রমাণ তো আছেই। তুমি আমাকে বলেছ, আমি লাইম লাইটে আসতে চাই। আরে—তুমি কাজ করো মিডিয়ায়, এসব পলিসি তুমি জানো, আমি এসব চিন্তাও করি না। তোমার হাবি’র (হাবিব ওয়াহিদ, তোমার দেওয়া আদরের নাম) সঙ্গে পাঁচ বছর সংসার করে মিডিয়াতে আসিনি, আবার এখন! আসলে তো মানসিক পাগল তুমি। তাই তো বলো, রেহান হাবিবের অতীত। আর এটা বলে তুমি হাবিবের অতীত নিয়ে সব সময় অনিরাপদ থাকো। হ্যাঁ, তবে ভুলে যেয়ো না আমাদের একটা সন্তান আছে। যোগাযোগ তো থাকবেই, যত দিন হাবিব তাঁর সন্তান আলিমকে ভালোবাসবে। তোমারও পরিবার আছে, মানসম্মান আছে—তাহলে পরিবারকে আর ছোট কোরো না। আমাকে প্রতিবার বলতে না, তোমার আর হাবিবের স্বর্গীয় ও তীব্র ভালোবাসা কারও ক্ষমতা নাই নষ্ট করার। প্রমাণ করো ভাই, তোমার শুদ্ধ ভালোবাসার।’ 

২০১১ সালে ১২ অক্টোবর চট্টগ্রামের মেয়ে রেহান চৌধুরীর সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় হাবিব ওয়াহিদের। পাঁচ বছরের দাম্পত্য জীবনে ২০১২ সালে ২৪ ডিসেম্বর তাঁদের ঘর আলো করে আসে একমাত্র সন্তান আলিম। এ বছরের ১৯ জানুয়ারি তাঁদের আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ হয়ে যায়। ২০০৩ সালে প্রথম লুবায়না নামের এক মেয়েকে বিয়ে করেন হাবিব। বিয়ের কয়েক বছরের মাথায় প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটে তাঁর।



Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.