সর্বশেষ সংবাদ

আত্মহত্যা প্রতিরোধে Linkin Park-এর ওয়েবসাইট

কার্ট কোবেইন, নিক ড্রেক, ইয়ান কার্টিস, মাইকেল হ্যাটচেন্স—নামের তালিকাটি খুব ছোট নয়। তাঁরা সবাই বিশ্বের সেরা সংগীতশিল্পী এবং তাঁরা আত্মহত্যা করেছেন। এই তো সদ্য মারা গেলেন ক্রিস কর্নেল। সর্বশেষ Linkin Park-এর কণ্ঠশিল্পী চেস্টার চার্লস বেনিংটন ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। প্রায় প্রত্যেক তারকার বয়সই পঞ্চাশের মধ্যে।

আত্মহত্যা প্রতিরোধে Linkin Park-এর ওয়েবসাইট

অকালে তারকাদের এই আত্মহত্যা জন্ম দিয়েছে উদ্বেগের। সেই উদ্বেগ ছুঁয়ে গেছে লিনকিন পার্ক ব্যান্ডকেও। তারা চালু করল আত্মহত্যা প্রতিরোধে একটি ওয়েবসাইট। চেস্টার বেনিংটনের নামে নামকরণ করা হয়েছে সাইটটির। এটি প্রিয় শিল্পীকে লিনকিন পার্কের জানানো শ্রদ্ধা।

সাইটটিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আত্মহত্যা প্রতিরোধ সার্ভিসের টেলিফোন নম্বর দেওয়া আছে। টেক্সট মেসেজের মাধ্যমে সাহায্য পাওয়ারও আছে ব্যবস্থা। শিল্পীকে শ্রদ্ধা জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লেখা মেসেজগুলোও যোগ হবে সাইটে।

গত বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল নয়টার কিছুক্ষণ আগে লস অ্যাঞ্জেলেসে নিজের বাসা থেকে বেনিংটনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সেখানকার কাউন্টি ডিপার্টমেন্ট অব মেডিকেল এক্সামিনার কর্নারস অফিসের চিফ অব অপারেশনস ব্রাইন ইলায়াস বেনিংটনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দুবারের গ্র্যামিজয়ী এই সংগীতশিল্পী উপহার দিয়েছেন অসাধারণ সব গান। সেগুলোর মধ্যে ‘নাম্ব’, ‘ইন দ্য এন্ড’, ‘নিউ ডিভাইড’, ‘হোয়াট আই হ্যাভ ডান’, ‘ব্রেকিং দ্য হ্যাবিট’, ‘ক্রলিং’, ‘ফেইন্ট’, ‘বার্ন ইট ডাউন’, ‘সামহোয়্যার আই বিলং’ গানগুলোর কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করা যায়। বেনিংটন ১৯৭৬ সালের ২০ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনার ফোনিক্সে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর মৃত্যুতে লিনকিন পার্ক তাদের উত্তর আমেরিকার ট্যুরটি আপাতত বাতিল করেছে। 



Designed by Copyright © 2014
Powered by Blogger.